• u. Oct ২১, ২০২১

আমিওপারি ডট কম

ইতালি,ইউরোপের ভিসা,ইম্মিগ্রেসন,স্টুডেন্ট ভিসা,ইউরোপে উচ্চ শিক্ষা

আপনার শরীরকে বিষমুক্ত রাখবে এই ১০টি খাবার

ByMilu

Oct 31, 2012

১. লেবু

লেবুতে আছে একগুচ্ছ ডিটক্স ডাইট ( যা টক্সিন নামক বিশেষ প্রকার জৈব বিষ নির্মূলে সাহায্য করে)।

লেবুতে পাবেন অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ভিটামিন সি, যা ত্বকের জন্য উপকারী। তাছাড়া লেবুর ক্ষারীয় প্রভাব আপনার শরীরের pH এর ভারসাম্য ফিরিয়ে আনে। প্রতিদিন এক ফালি লেবু তারসাথে গরম পানি আপনার শরীর থেকে টক্সিন নির্মূল করবে ।

২. আদা

অতিরিক্ত তৈলাক্ত খাবার যা আপনার পাচনতন্ত্রের জন্য সমস্যা সৃষ্টি করে । প্রতিদিন আপনার খাদ্যতালিকায় কিছু আদা যোগ করুন । এতে আপনার হজম শক্তি বৃদ্ধি পাবে, বমি বমি ভাব দূর হবে এবং পেটের গ্যাস দূর করবে । নিয়মিত আদা চা সেবন সবচেয়ে উপকারী।

৩.রসূন

আমরা সবাই জানি রসূন হলো হার্টের জন্য সবচেয়ে উপকারী খাদ্য । রসূনে আছে এলিসিন নামক রাসায়নিক উপদান যা রক্তে শ্বেত রক্তকণিকা উৎপাদনে এবং টক্সিন নির্মূলে সাহায্য করে। কাচা রসূন খাওয়া সবচেয়ে উপকারী । তাছাড়া সালাদের সাথে কাচা রসূন খাওয়া যেতে পারে ।

৪. আর্টিচোক

সম্প্রতি যদি আপনি অতিরিক্ত চর্বি জাতীয় খাবার খেয়ে থাকেন তবে অব্শ্যই আপনার প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় কিছু আর্টিচোকের পাতা যোগ করুন । এতে পাবেন অ্যান্টিঅক্সিডেন্টসমূহ ও ফাইবার যা তৈলাক্ত খাবার হজমে দ্রুত সাহায্য করে । তাছাড়া আপনার লিভারকে সুস্থ রাখতেও আর্টিচোক সাহায্য করবে ।

৫. বীট 

কারো শরীরে যদি দ্রুত পুষ্টির প্রোয়োজন হয় তবে অবশ্যই বীট খাওয়া উচিত । বীটে আছে ম্যাগনেসিয়াম, আয়রন, ভিটামিন সি । বিভিন্ন স্বাস্থ্যকর উপদান থাকার জন্য অনেকে বীটকে সুপারফুড বলে থাকে । চুল, ত্বক এবং কলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রনে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। বীটের সালাদ বা জুস খুবই উপকারী।

৬. গ্রীন টি (সবুজ চা)

সবুজ চা যদিও কোন খাবার না তবে আপনার শরীর থেকে বিষযুক্ত জৈব রাসায়নিক নির্মূলে পানীয়র কোন বিকল্প নেই। তরল খাবার আমাদের শরীরের বিভিন্ন উপাদানকে কর্মক্ষম রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে আর সবুজ চা পান হচ্ছে সবচেয়ে ভাল। সবুজ চা শুধুমাত্র চা নয়, এটি একটি ভাল ওজন হ্রাস পানীয়, এতে আছে উচ্চমাত্রার অ্যান্টিঅক্সিডেন্টসমূহ । গবেষণা থেকে জানা যায় সবুজ চা লিভারকেও সুস্থ রাখে ।

৭. বাধাকপি

বাধাকপির সুপ শুধুমাত্র আপনার শরীরের ওজনই কমায় না, শরীরের পূর্বের আকার ফিরে পেতে সাহায্য করে । বাধাকপি আপনার শরীরে পর্যাপ্ত পরিমানে গ্লুটাথায়ন এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সরবরাহ করে যা আপনার লিভারকে কর্মক্ষম রাখাতে সাহায্য করে ।

৮. টাটকা ফল

তাজা ফলে আছে ভিটামিন, খনিজ, অ্যান্টিঅক্সিডেন্টসমূহ, ফাইবার এবং কম ক্যালোরি যা আপনার শরীর থেকে খারাপ উপাদানগুলো নির্মূলে সাহয্য করে । আপনার চোখ ও ত্বককে উজ্বল করে এবং হজম শক্তি বাড়িয়ে দেয়।

৯. বাদামি চাল

আপনার শরীরের সিস্টেমকে যদি কর্মক্ষম এবং সুস্থ রাখতে চান তবে অবশ্যই প্রসেস ফুড খাওয়া বন্ধ করতে হবে তার পরিবর্তে বাদামি চাল খেতে হবে । বাদামি চালে পাবেন ভিটামিন বি, ম্যাগনেসিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ ও ফসফরাসসহ detoxifying পুষ্টি। তাছাড়া উচ্চ ফাইবার (আশযুক্ত খাবার), মলাশয় শোধক এবং মৌলিক খনিজ পদার্থ।

১০. জলজ শাক

একপ্রকার জলজ শাক যার ঝাল ঝাল পাতা সালাদে দেওয়া হয় এটি একটি চমৎকার স্বাস্থ্য-সহায়তাকারী এবং detox খাদ্য। এতে আছে ভিটামিন বি, দস্তা, পটাসিয়াম, ভিটামিন ই এবং ভিটামিন সি যা মূত্রবর্ধক।

আল্লাহ তা’আলা আমাদের আশেপাশের সাধারণ কিছু খাবারের ভেতরই সমস্যাগুলোর সমাধান তৈরি করে রেখেছেন। শুধু একটু খেয়াল করুন, মেনে চলুন সুস্থ জীবনধারার নিয়মগুলো। ভালো থাকুন নিয়তই… 

*****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *