• u. Oct ২১, ২০২১

আমিওপারি ডট কম

ইতালি,ইউরোপের ভিসা,ইম্মিগ্রেসন,স্টুডেন্ট ভিসা,ইউরোপে উচ্চ শিক্ষা

কানাডায় পরতে আসা প্রবাসী স্টুডেন্টদের দুঃখ-কষ্ট তথা বাস্তব চিত্র নিয়ে করা একটি প্রতিবেদন

ByLesar

Oct 12, 2013

আসিফ আহমেদঃ কানাডাই ব্যাচেলর্স করতে আসলাম আজ ২ বছর ১০ মাস হল। জীবন যে কতো কঠিন এইখানে আসার পর আস্তে আস্তে বুঝতে শিখলাম। নিজে পড়ালেখা করা, কাজ করে নিজের টিউশন ফী দেওয়া। মাঝে মাঝে মা এর কাছে টাকা পাঠানো।শত কষ্টের মধ্যেও জীবন চলে যায়। যায় প্রত্যেকটা দিন।তো গত রোববার ছিল আমাদের বাংলাদেশি স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশান এর বার্ষিক সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা। পাশ করা ছাত্রদের বিদাই দেওয়া আর নবীন দের বরণ করা।
শেষ মুহূর্তে চিন্তা করলাম এই ভিডিও টা বানাবো।সব বন্ধুরা ৪ দিন রাত খেটে কাজ শেষ করলাম। অনেক আবেগঘয়ী মুহূর্তের মধ্যে পার করেছিলাম এই ৪ টা দিন। আমার জীবনের সেরা ৪ টা দিন।আর আমার বন্ধু বান্ধব যেই দেখেছে, বলেছে অনেকের মন খারাপ হয়েছে, অনেকের চোখ ঝাপসা হয়ে এসেছে, আবার অনেকে কান্না করেছে।আমি শুধু দেখাতে চেয়েছি আমরা অনেক অল্প বয়সে এসে এইখানে কেমন থাকি। বাবা মা, বন্ধু বান্ধব দের ছেড়ে আসা কতো কষ্টকর। আর আমরা কি কি হারিয়ে ফেলছি।আর মনে করে দিতে চেয়েছি বাবা মা কে। কারন এই আত্মকেন্দ্রিক আর ব্যস্ত দেশে আস্তে আস্তে আমাদের আবেগ আর অনুভূতি গুলো ও পাথরের মত শক্ত হয়ে যায়।আশা করি সবার ভাল লাগবে। অন্তত বুঝতে পারবেন প্রবাসী স্টুডেন্টদের দুঃখ-কষ্ট তথা বাস্তব চিত্র গুলো।


[[ আপনি জানেন কি? আমাদের সাইটে আপনিও পারবেন আপনার নিজের লেখা জমা দেওয়ার মাধ্যমে আপনার বা আপনার এলাকার খবর তুলে ধরতে এই লেখায় ক্লিক করে জানুন এবং  তুলে ধরুন। নিজে জানুন এবং অন্যকে জানান। আর আমাদের ফেসবুক ফ্যানপেজে রয়েছে অনেক মজার মজার সব ভিডিও সহ আরো অনেক মজার মজার টিপস তাই এগুলো থেকে বঞ্চিত হতে না চাইলে এক্ষনি আমাদের ফেসবুক ফ্যানপেজে লাইক দিয়ে আসুন। এবং আপনি এখন থেকে প্রবাস জীবনে আমাদের সাইটের মাধ্যমে আপনার যেকোনো বেক্তিগত জিনিসের ক্রয়/বিক্রয় সহ সকল ধরনের বিজ্ঞাপন ফ্রিতে দিতে পাড়বেন। ]]

*****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

Lesar

আমিওপারি নিয়ে আপনাদের সেবায় নিয়োজিত একজন সাধারণ মানুষ। যদি কোন বিশেষ প্রয়োজন হয় তাহলে আমাকে ফেসবুকে পাবেন এই লিঙ্কে https://www.facebook.com/lesar.hm

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *