• Sun. Sep ১৯, ২০২১

আমিওপারি ডট কম

ইতালি,ইউরোপের ভিসা,ইম্মিগ্রেসন,স্টুডেন্ট ভিসা,ইউরোপে উচ্চ শিক্ষা

আপনি কি জানেন? ফ্রান্সে পড়াশোনার ভালো সুযোগ আছে!!

Byexperience

Jun 15, 2013

প্যারিস বাঙ্গালিঃ ফ্রান্সে বাংলাদেশিরা আসেন অনেকেই অনেক সমস্যা সম্মুখীন হয়ে । ফ্রান্সে বাংলাদেশ থেকে আসতে পারেন লেখাপড়া করেতে । ফ্রান্সে লেখাপড়া করতে আসার জন্য প্রথমে বিশ্ববিদ্যালয় নির্বাচন ও আপনার বাংলাদেশের স্টুডেন্ট কাগজপত্র লাগবে । সবার আগে বিষয় ও বিশ্ববিদ্যালয় নির্বাচন করতে হবে। প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আগে থেকেই প্রস্তুত রাখতে হবে।

ভর্তির আবেদনঃবিষয় ও বিশ্ববিদ্যালয় নির্বাচন করার পর প্রয়োজনীয় কাগজপত্র এবং ফিস সহ বিশ্ববিদ্যালয়ের দিকনির্দেশনা অনুযায়ী ভর্তির আবেদন করতে হবে ফ্রান্সের বিশ্ববিদ্যালয়ে । আবেদনপত্র পাঠানোর পর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কাগজপত্র ও তথ্য যাচাই-বাছাই করে যোগ্য শিক্ষার্থীদের ঠিকানায় ‘অফ্রা লেটার’ ( OFPRA ) পাঠাবে।

ভিসা আবেদনঃ‘অফ্রা লেটার’ ( OFPRA ) হাতে পাওয়ার পর ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে ঢাকাস্থ ফরাসি দূতাবাসে। ভিসা-প্রক্রিয়া সম্পন্ন হতে সাধারণত তিন সপ্তাহ সময় লাগে।ঠিকানা : রোড-১০৮, বাড়ি-১৮, গুলশান, ঢাকা, ফোন : ০২-৮৮১৩৮১২, ওয়েব : http://www.ambafrance-bd.org/

ফ্রান্সে পৌছার পরঃশিক্ষার্থীদের জন্য ইস্যু করা স্টুডেন্ট ভিসা পাসের মেয়াদ চার মাস। প্রয়োজনীয় ফি পরিশোধ করে মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই তা নবায়ন করে নিতে হবে। ফ্রান্সের অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়া যায় বছরে দুবার_গ্রীষ্ম ও শীতকালীন সেশনে। সেশন শুরু হওয়ার অন্তত দুই-তিন মাস আগে থেকেই ভর্তি কার্যক্রম শুরু করতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে দরকারি তথ্য জেনে আগেই প্রয়োজনীয় সব কাগজপত্র প্রস্তুত রাখা ভালো।

ফরাসির পাশাপাশি ইংরেজিতে পড়াশোনাঃফ্রান্সের অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয়েই ফরাসি ভাষা পড়ানো হয়। তবে ইংরেজি ভাষায় পড়ানো হয় এমন বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যাও কম নয়। তবে ফরাসি ভাষা জানা থাকলে পড়াশোনার পাশাপাশি খণ্ডকালীন কাজ পেতে সুবিধা হয়। দেশটিতে পড়তে আসার আগেই ফরাসি ভাষা শিখতে পারবেন ঢাকা ও চট্টগ্রামের আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ থেকে।বিস্তারিত তথ্য জানতে যোগাযোগ করুন : আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ, ২৬ মিরপুর রোড, ধানমণ্ডি, ঢাকা, ফোন : ০২-৮৬১১৫৫৭। অনলাইনেও প্রয়োজনীয় তথ্য জানতে পারবেন এ সাইট থেকে http://www.afdhaka.org/ ।

কেমন খরচ হবে?-প্যারিসে থাকতে গেলে সাধারণত রুম ভাড়া বাবদ প্রতি মাসে একজন শিক্ষার্থীর ৪০০ থেকে ৬০০ ইউরোর মতো লাগে। খাওয়া ও আনুষঙ্গিক খরচের জন্য লাগে আরো প্রায় ৩০০ ইউরো। ব্যাচেলর স্তরের পড়াশোনা করতে গেলে বিষয় ও বিশ্ববিদ্যালয়ভেদে প্রতিবছর ছয় থেকে ১৫ হাজার ইউরো গুনতে হয় শিক্ষার্থীকে। উল্লেখ্য, প্রতি ইউরো সমান ৯৮/১০০ টাকা।

পড়াশোনার পাশাপাশি কাজঃসপ্তাহে ২০ ঘণ্টা কাজের নিয়ম থাকলেও ছুটির দিনগুলোতে ফুলটাইম কাজের সুযোগ পান শিক্ষার্থীরা। প্যারিসসহ জনবহুল ও ব্যস্ত নগরীগুলোতে কাজের সুযোগ সবচেয়ে বেশি। ফ্রান্স ভাষা জানা থাকলে রেস্টুরেন্ট, দোকান, শপিং মলে কাজ করে ভালো আয় করা যায়।

আছে বৃত্তির সুযোগঃসরকারি প্রতিষ্ঠান ছাড়াও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এবং সংস্থার বিভিন্ন বৃত্তি পান বিদেশি শিক্ষার্থীরা। বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন এই সাইটে http://ec.europa.eu/ /erasmus-mundusআরো তথ্য পেতে ভিজিট করুন এ ওয়েব লিংকে http://www.campusfrance.org/en

 

ফ্রান্সের কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ওয়েব ঠিকানা

http://www.paris-sorbonne.fr/

http://www.univ-lyon1.fr/

http://www.college-de-france.fr/

http://www.u-bordeaux1.fr/

http://www.univ-montp2.fr/

http://www.ujf-grenoble.fr/

http://www.univ-toulouse.fr/

[[ আপনি জানেন কি? আমাদের সাইটে আপনিও পারবেন আপনার নিজের লেখা জমা দেওয়ার মাধ্যমে আপনার বা আপনার এলাকার খবর তুলে ধরতে জানতেএখানে ক্লিক করুণতুলে ধরুন  নিজে জানুন এবং অন্যকে জানান ]]

*****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****
One thought on “আপনি কি জানেন? ফ্রান্সে পড়াশোনার ভালো সুযোগ আছে!!”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *