• Sat. Oct ১৬, ২০২১

আমিওপারি ডট কম

ইতালি,ইউরোপের ভিসা,ইম্মিগ্রেসন,স্টুডেন্ট ভিসা,ইউরোপে উচ্চ শিক্ষা

বিশ্বের সেরা ২৬টি দেশের তালিকা: শীর্ষে নরওয়ে, সুইজারল্যান্ড এবং ডেনমার্ক

ByLesar

Nov 8, 2015

মোহাম্মাদ ফয়সাল কোপেনহেগেনঃ অতি সম্প্রতি ব্রিটেনের থিঙ্ক ট্যাঙ্ক খ্যাত লিগাটুম ইন্সটিটিউট বৃহত্তর পরিসরে এক গবেষণা করে যার উদ্দেশ্য হচ্ছে আমাদের বসবাসের জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত দেশের সন্ধান দেয়া। লিগাটুম ইন্সটিটিউটের গবেষণায় বের হয়ে আসে বিশ্বের শীর্ষ সুখী, ধনী, সুস্থ ও অপরাধমুক্ত দেশের তালিকা।
বসবাসের জন্য বিশ্বের সেরা দেশের তালিকা তৈরি করতে গিয়ে লিগাটুম ইন্সটিটিউট সর্বমোট ৮৯টি বিভিন্ন প্যারামিটার বা সূচক বিবেচনায় আনে। গ্রস ডুমেস্টিক প্রোডাক্ট এবং জব মার্কেটে মোট জনসংখ্যার শতাংশের উপস্থিতি থেকে শুরু করে ইন্টারনেট সার্ভারের নিরাপত্তা মত তুচ্ছ বিষয়ের সাথে সাথে মাথাপিছু আয়, কর্মসংস্থান, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, নিরাপত্তা, ব্যক্তিগত স্বাধীনতা ও সামাজিক নানা বিষয় বিবেচনায় আসার পর দেখা যায় বিশ্বের সেরা ২৬টি দেশের তালিকার শীর্ষ স্থান দখল করে আছে স্ক্যানডেনিভিয়ার তেল সমৃদ্ধ দেশ নরওয়ে। ।
সারা বিশ্বের সর্বোচ্চ প্রাপ্ত তথ্যের বিত্তিতে করা উক্ত তালিকায় থিঙ্ক ট্যাঙ্ক লিগাটুম ইন্সটিটিউট ১৪২টি দেশকে অন্তর্ভুক্ত করে। আশা করা যায় উক্ত তালিকা থেকে আপনারা আপনাদের পছন্দের একটা দেশ পেয়ে যাবেন যেখানে কাটিয়ে দিতে পারেন আপনার জীবনের অবশিষ্ট সময়টুকু। অবশ্য আপনার পছন্দের দেশ নির্বাচনে আপনি যদি অর্থনৈতিক সমৃদ্ধিকেই প্রধান বিবেচ্য হিসাবে নেন সে ক্ষেত্রে হতে পারে আপনার ব্যক্তিগত নিরাপত্তা তত প্রভাবশালী ফ্যাক্টর নাও হতে পারে।
ডেনমার্কের সাম্প্রতিক স্বাস্থ্য খাতের অবনমন, মাত্রাতিরিক্ত ধূমপান এবং অ্যালকোহলে আসক্তি ডেনমার্কে বিশ্বের সেরা দেশের শীর্ষস্থান বঞ্চিত করে তৃতীয় স্থানে নিয়ে আসে। অন্যদিকে, গত সাত বছর ধরে শীর্ষ স্থানটি দখলে নেয় নরওয়ে যারা স্বাস্থ্য, শিক্ষা, পরিবেশ, নিরাপত্তা এবং অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি প্রায় সব খাতেই শীর্ষ স্থান ধরে রেখেছে। এক্ষেত্রে শুধুমাত্র গভর্নেন্স ও অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির কারণেই গত তিন বছর ধরে দ্বিতীয় স্থানটি ধরে রাখে সুইজারল্যান্ড।
লিগাটুম ইন্সটিটিউটের তালিকায় শীর্ষ ২৬টি দেশগুলোর তালিকা নিম্নরূপ-
১. নরওয়ে
২. সুইজারল্যান্ড
৩. ডেনমার্ক
৪. নিউজিল্যান্ড
৫. সুইডেন
৬. কানাডা
৭. অস্ট্রেলিয়া
৮. নেদারল্যান্ডস
৯. ফিনল্যান্ড
১০. আয়ারল্যান্ড
১১. যুক্তরাষ্ট্র
১২. আইসল্যান্ড
১৩. লুক্সেমবার্গ
১৪. জার্মানি
১৫. যুক্তরাজ্য
১৬. অস্ট্রিয়া
১৭. সিঙ্গাপুর
১৮. বেলজিয়াম
১৯. জাপান
২০. হং কং
২১. তাইওয়ান
২২. ফ্রান্স
২৩. মালটা
২৪. স্পেন
২৫. স্লোভেনিয়া
২৬. চেক রিপাবলিক।

*****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

Lesar

আমিওপারি নিয়ে আপনাদের সেবায় নিয়োজিত একজন সাধারণ মানুষ। যদি কোন বিশেষ প্রয়োজন হয় তাহলে আমাকে ফেসবুকে পাবেন এই লিঙ্কে https://www.facebook.com/lesar.hm

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *