• Fri. Sep ২৪, ২০২১

আমিওপারি ডট কম

ইতালি,ইউরোপের ভিসা,ইম্মিগ্রেসন,স্টুডেন্ট ভিসা,ইউরোপে উচ্চ শিক্ষা

ইউরোপে চাকরী খুঁজে পাওয়ার এক অভিনভ পদ্ধতি।বুদ্ধি থাকলে উপায়।

ByLesar

Dec 10, 2014

দিন দিন আমরা প্রযুক্তিবান্ধব হয়ে যাচ্ছি। আর বর্তমান বিশ্ব অর্থনৈতিক মন্দার কবলে, নিজের ভাগ্যের চাকার পরিবর্তন করার বিষয়টি বিভিন্ন ধরণের চেলেঞ্জ ছুড়ে দিচ্ছে প্রতিনিয়ত। কেননা আপনার ভাগ্য পরিবর্তনে আপনাকেই কোন না কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।তবে সেটিতে হতে হবে প্রযুক্তির ছোঁওয়া। কিন্তু কিভাবে?

একসময় ছিল!! বাজারে ভালো একটি মোবাইল সেটের কথা বললে সবার প্রথম নোকিয়াকে সবাই প্রাধান্য দিতো। সকলের মনেই একটি আশা, যদি নোকিয়ার নতুন মডেলের মোবাইল সেইটি ক্রয় করতে পারতাম। কিন্তু যুগের সাথে তাল মিলিয়ে নোকিয়ার সেই এনালগ তথা হাতে বাটন টিপে মোবাইল ব্যবহার করার দিন প্রায় গুটিয়ে এসেছে। এখন সবাই ছুটছে টাচস্ক্রীন তথা স্মার্ট ফোন এর দিকে।আবার আমাদের দেশের পাসপোর্ট এর কথাই ধরুন, হাতে লেখা পাসপোর্ট পরিবর্তন করে বর্তমানে ডিজিটাল তথা প্রযুক্তির ছোঁওয়া রয়েছে এমন পাসপোর্ট নিতে হচ্ছে আমাদের সবাইকে। ঠিক তেমনি প্রযুক্তি বর্তমানে আমাদের জীবন ধারার মান অনেক পালটিয়ে দিচ্ছে। তবে প্রযুক্তির সাথে তালে তাল মিলিয়ে চলা কিন্তু চারতে খানি কথা নয়। আপনাকে প্রতিনিয়ত আপডেট থাকতে হবে। নতুন নতুন আইডিয়া খুঁজে বের করতে হবে। যার আইডিয়া যত ভালো? সেই বর্তমানে সকলের প্রশংসার পাত্র।

ঠিক তেমনি ADAM নামে একটি ছেলে তাক লাগিয়ে দিল বিশ্ব বাসীকে। বিশেষ করে সমাজের যুবকদের।  ADAM পড়ালেখা শেষ করে উচ্চ ডিগ্রি নিয়েও দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের দারে দারে ঘুরে বেড়িয়েছে।তার মনের মতো একটি জব খুঁজে পাওয়ার আশায়। কিন্তু শত চেষ্টা করেও সে কারো দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারেনি।অবশেষে তার ভিতরে লুকায়িত প্রতিভার বহীরপ্রকাশ ঘটিয়ে ADAM তার গন্তব্য স্থানে পৌছতে সক্ষম হয়। তার নরমাল সিভি (CV) র পরিবর্তে সম্পূর্ণ নতুন পদ্ধতিতে ডিজিটাল সিভি (CV)  তথা ভিডিও সিভি (CV)  তৈরি করে ইউটিউবে আপলোড করে। এবং সেই সাথে তার জীবন বিত্তান্ত দিয়ে নিজের একটি ওয়েবসাইট তৈরি করে। এবং তার শেষ সম্বল ৬০০ ইউরোর বিনিময়ে বিশাল বড় পোস্টার আকারে রাস্তার আকর্ষণীয় একটি বিলবোর্ডে তার সেই পোস্টার আকারের বিজ্ঞাপনটি প্রকাশ করে। যেখানে বড় করে লেখা রয়েছে “আমি আমার শেষ সম্বল ৬০০ ইউরো এই পোস্টার তৈরিতে খরচ করেছি, প্লিজ আমাকে একটি কাজ দাও”। আর সেখানে বড় করে তার সেই ডিজিটাল সিভি (CV)  ও ওয়েবসাইটের এড্রেস দেওয়া ছিল। পোস্টারটি প্রকাশ করার কিছু দিনের মধ্যে সে ২৫০ টির মতো নামকরা প্রতিষ্ঠান থেকে কাজের অফার সংক্রান্ত ইমেইল পেয়েছে।

বন্ধুরা আসলে সেই দিন খুব দূরে নয়? যখন আপনাকে বলা হবে আপনার একটি ডিজিটাল সিভি (CV)  তৈরি করে প্রতিষ্ঠানের কাছে প্রেরন করতে। আর হাঁ এই ডিজিটাল সিভি (CV)  -র বিষয়টি কিন্তু আপনার সম্পর্কে পরিপূর্ণ ধারণা পেতে সাহায্য করবে একটি প্রতিষ্ঠানকে। কেননা তখন অনেক টা এরকম হবেঃ আপনি একটি প্রতিষ্ঠানে কুক তথা রান্নার কাজ করছেন? তখন আপনার কলিক কে বলবেন… ভাই আমি যখন এই ডিসটি তৈরি করবো তখন তুমি আমার একটু ভিডিও করবে। কারন আমি এই অংশ টুকু আমার ডিজিটাল সিভি (CV)  তে সংযুক্ত করবো।এবং এভাবে আপনার সকালে ঘুম থেকে ওয়েক আপ করা থেকে শুরু করে সারাদিনের জীবন বিত্তান্ত খুব সুন্দর করে উপস্থাপন করতে পারবেন।আর এভাবেই দিনে দিনে পালটিয়ে যাবে আমাদের কাগজে তৈরি করা সিভি (CV) -র চাহিদা।


যারা আপনাদের ফেসবুকে আমাদের সাইটের প্রতিটি লেখা পেতে চান তারা এখানে ক্লিক করে আমাদের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে গিয়ে লাইক দিয়ে রাখতে পারেন।তাহলে আমিওপারিতে প্রকাশিত প্রতিটি লেখা আপনার ফেসবুক নিউজ ফিডে পেয়ে যাবেন। ধন্যবাদ।

*****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

Lesar

আমিওপারি নিয়ে আপনাদের সেবায় নিয়োজিত একজন সাধারণ মানুষ। যদি কোন বিশেষ প্রয়োজন হয় তাহলে আমাকে ফেসবুকে পাবেন এই লিঙ্কে https://www.facebook.com/lesar.hm

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *