• u. Sep ১৬, ২০২১

আমিওপারি ডট কম

ইতালি,ইউরোপের ভিসা,ইম্মিগ্রেসন,স্টুডেন্ট ভিসা,ইউরোপে উচ্চ শিক্ষা

দীর্ঘ দিন অপেক্ষার পর কাগজ পেয়েও দেশে যাওয়া হলনা ইতালি প্রবাসী এক বাংলাদেশির!

ByLesar

Dec 5, 2014
প্রতি দিনের চেয়ে অাজকের সকালটা ব্যতিক্রম ! প্রতি দিন অন্য সব রুমেমেটদের টুংটাং শব্দে ঘুম ভাঙ্গে,অার অাজকের সকাল টা শুরু হল এক নিঃশব্দ কান্না দিয়ে।অাকাশে ছিল মেঘ, সাথে টিপটিপ বৃষ্টি হচ্ছে অামােদ মনের কান্নার সাথে মনে হয়েছে প্রকৃতিও কান্না করছে! রাত ১০ টার সময়ও এক সাথে টেবিলে বসে খানা খাওয়া অার প্রতি মুহূর্ত হাঁসি অাড্ডা,অার সেই চেনা মুখ গুলি থেকে একটা হাঁসি মুখ সকাল না হতেই কোথায় হারিয়ে গেছে, দুরে বহু দুরে যেখান থেকে কোনো দিন ফিরে অাসবে না, অামাদের মুক্তু ভাই, অনেক দিন পরে বৈধতা পেয়ে দেশে যাবে অাগামি জানুয়ারি মাসে ,প্রতিিদন কোন না কোন জিনিস কিনত বা চয়েছ লিেস্ট রাখত। অনেক দিন পরে দেশে যাবে বলে কথা, সবার জন্য গিফট নিতে হবে, বাসায় স্নেহ করে অামাকে ডাকত খান সাহেব অার প্রায়াই বলত চল এক সাথে দেশে যাই ,অার অামি মিচকি হাসি দিয়ে বলতাম অাপনি এবার যান অন্য বার না হয় একসাথে যাবো।অার তখন কল্পনা ভরা চেহারায় বলত কত দিন ছেলেমেয়েদের মুখ দেখি না মনটা খুব কাদে মন চায় এখননি উড়ে চলে যাই৷অাজেকে টেবিলটা খালি পরে অাছে কেউ খানার জন্য ডাকে না সব কিছু যেন নিঃশব্দ হয়ে গেছে। অার মুক্তু ভাই খান সাহেব বলে ডাকছে না৷ জীবন খনিকের জন্য!! একমাত্র মহান অাল্লাহ্ই জানে অামাদের কার কখন দুনিয়ার সময় শেষ হয়ে যাবে৷
নারায়নগঞ্জ নিবাসি মোঃ মোক্তার হোসেন গতকাল (৪ ডিসেম্বর ২০১৪) সকাল ৭টায় (স্থানীও সময়) ইতালির নাপলীতে  ইন্তেকাল করেছেন ( ইন্নালিল্লাহি………… রাজেউন)। তার শোক সন্তুপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করছি। তিনি মা-বাবা, স্ত্রী-সন্তানসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন রেখে আমাদের ছেড়ে চিরকালের জন্য চলে গিয়েছেন না ফেরার দেশে। আমরা আমিওপারি টিম তার আত্মার মাগফেতার কামনা করছি ও সমগ্র ইতালি প্রবাসী প্রতিটি বাংলাদেশি ভাই/ বোনেদের কাছেও মরহুমের জন্য দোয়া করার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।
*****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

Lesar

আমিওপারি নিয়ে আপনাদের সেবায় নিয়োজিত একজন সাধারণ মানুষ। যদি কোন বিশেষ প্রয়োজন হয় তাহলে আমাকে ফেসবুকে পাবেন এই লিঙ্কে https://www.facebook.com/lesar.hm

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *