• Sun. Jul ২৫, ২০২১

আমিওপারি ডট কম

ইতালি,ইউরোপের ভিসা,ইম্মিগ্রেসন,স্টুডেন্ট ভিসা,ইউরোপে উচ্চ শিক্ষা

সতর্কবার্তা ইতালিতে মোবাইল রিচার্জ নিয়ে অভিবাসীদের সাথে অভিনব প্রতারণা করা হচ্ছে।

ByLesar

Jul 2, 2014

প্রিয় আমিওপারির সম্মানিত পাঠক বৃন্দ, আপনাদের অসংখ্য ধন্যবাদ যে আপনারা আমাদের অনেক আপন করে নিয়েছেন, এবং আপনাদের সাথে ঘটে যাওয়া বিভিন্ন বিষয় গুলো আমাদের মাধ্যমে সবার কাছে তুলে ধরছেন। নাম প্রকাশ না করা আমাদের এক ইতালি প্রবাসী ভাই তার সাথে ঘটে যাওয়া একটি বিষয় আমাদের কাছে তুলে ধরেছেন, যা আমরা আপনাদের কাছে তুলে ধরলাম।

আমরা জানি বর্তমানে সমগ্র ইউরোপ জুড়ে বিশ্ব মন্দার প্রভাব চলছে, তবে ইতালিতে বর্তমানে এই বিশ্ব মন্দার প্রভাব এতো বেশি বেড়ে গিয়েছে যা আমরা কখনো কল্পনাও করতে পারিনি। কথায় কথায় বিভিন্ন ফ্যাক্টরি বন্ধ হয়ে যাচ্ছে, বিভিন্ন রেস্টুরেন্ট গুলোতে মালিক পক্ষ পুরনো কর্মচারীদের অনেকটা জোর করে বহিষ্কার করে সেখানে অর্ধেক বেতনে নতুন নতুন কর্মচারীদের নিয়োগ দিচ্ছেন, এরকম হাজারো সমস্যা রয়েছে যা বলে শেষ করা যাবে না। যাই হোক বর্তমানে অনেক ইতালিয়ান দোকানদার নানা কৌশলে নতুন নতুন পদ্ধতি অবলম্বন করে বিদেশীদের সাথে প্রতারণা করছেন। এর প্রধান কারন হচ্ছে ওরা মনে করে যে ৮০% বিদেশী ইতালিয়ান ভাষা বলতে পারে না!! সাথে ইতালিয়ান নিয়ম কানক ও জানে না। আর তাই তারা বিদেশীদের কেই বেশি টার্গেট করে।

আমাদের আজকের লেখার এই ঘটনা যা নিয়ে ঘটেছে সেটি একটি তাবাক্কি  (  TABACCHI )  মানে যেখানে সিগারেট সহ বিভিন্ন মোবাইল রিচার্জ সংক্রান্ত বিষয় গুলো পাওয়া যায়। তো রতন ভাই (ছদ্দ নাম) ছুটির দিন তার এক বন্ধুর এলাকায় ঘুরতে যায়, সেখানে যাওয়ার পর তার বন্ধুকে কল করার প্রয়োজন হলে সে সেখানে একটি টোব্যাকো বা  TABACCHI তে প্রবেশ করে! সেখানে দোকানদারকে একটি উয়িন্দ এর ১০ ইউরোর রিচার্জ কার্ড দিতে বলে। বলার সাথে সাথে দোকানদার তাকে ১০ ইউরোর রিচার্জ কার্ড দিলে সে মূল্য পরিষদ করে সেখান থেকে বের হয়ে যায়। বের হওয়ার পর সে যখন কার্ডটি স্ক্রাচ বা ঘষতে যাবে তখন তার মাথায় হাত, মানে কেউ আগেই এই কার্ডটি ঘষে সেই নাম্বার ব্যবহার করে রেখেছে। তবে এটি এতো সুন্দর পদ্ধতিতে করা হয়েছে যা আপনি এক ঝলকে কখনোই পরখ করতে পারবেন না। মানে এরা খুব চালাকি করে কোন সুক্ষ ব্লেড দিয়ে শুধু মাত্র সেই অংশটুকু এতো পরোক্ষ ভাবে কেটে নাম্বারটি নিয়ে!! সেটাকে আবার এমন ভাবে লাগিয়ে রাখে যে আপনি যখন কার্ডটি ক্রয় করার জন্য হাতে নিবেন তখন আপনি দুই পাশে ঘুরি দেখলেও বুঝতে পারবেন না।

পরে রতন ভাই সাথে সাথে সেই দোকানে গিয়ে অভিযোগ করলে দোকানদার উল্টো তাকে সন্দেহ করে বসে। এবার বুঝেন কেমন চালাকি’টা করছে। আপনাকে এমন ভাবে বাঁশ দিচ্ছে যে আপনি এদিক ও যেতে পারছেন না আবার ওদিক ও যেতে পারছেন না। এখানে রতন ভাই সাথে সাথে উয়িন্দ কোম্পানির কাছে ফোন দিয়েছিলো। কিন্তু তারা বলে কে বা কারা এই কার্ড এর নাম্বারটি ব্যবহার করেছে তা জানতে হলে রতন ভাইকে ওদের কাছে তার ডকুমেন্টস সহ বিস্তারিত ঘটনা ইতালিয়ান ভাষায় লিখে ফাক্স করে পাঠাতে হবে। তার পর ওরা এর যাচাই বাচাই করে তাকে জানাবে কে এই নাম্বার ব্যবহার করেছিলো, এর বেশি কিছু করতে পারবে না। আর ইতালিয়ান পুলিশ এর কাছে যাবে? সেখানে গিয়েও সেই একি অবস্থা এই কার্ডটি নিয়ে দোকানদারি যে তার সাথে দুই নাম্বারি করেছে তার প্রমান কি? আবার রতন ভাই হচ্ছে কালো চামড়ার। তো বন্ধুরা বুঝতেই পারছেন ইতালির বর্তমান অবস্থা, কাজেই এখন থেকে কোন দোকানে এই কার্ড নিতে হলে কি করবেন? আসা করি আপনাদের আর বলে দেওয়া লাগবে না। ধন্যবাদ। এরকম আপনিও চাইলে আমাদের কাছে আপনার সাথে ঘটে যাওয়া যেকোনো বিষয় পাঠিয়ে অথবা নিজে নিজেই আমিওপারির মাধ্যমে লিখে প্রকাশ করতে পারেন। আমিওপারিতে কিভাবে লিখবেন তার সম্পর্কে জানতে এখানে ক্লিক করুণ আমিওপারি ব্লগে লেখা জমা দেওয়ার পদ্ধতি

*****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

Lesar

আমিওপারি নিয়ে আপনাদের সেবায় নিয়োজিত একজন সাধারণ মানুষ। যদি কোন বিশেষ প্রয়োজন হয় তাহলে আমাকে ফেসবুকে পাবেন এই লিঙ্কে https://www.facebook.com/lesar.hm

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *