• Tue. Aug ৩, ২০২১

আমিওপারি ডট কম

ইতালি,ইউরোপের ভিসা,ইম্মিগ্রেসন,স্টুডেন্ট ভিসা,ইউরোপে উচ্চ শিক্ষা

অল ইউরোপিয়ান বাংলাদেশ এসোসিয়েশন (আয়েবা) দেশে বিদেশে বাংলাদেশীদের কল্যাণে কাজ করার পাশাপাশি ইউরোপ প্রবাসী বাংলাদেশীদের সব সমস্যার সমাধানে এগিয়ে আসবে!

Byfarid ahammad

Jan 26, 2014

অল ইউরোপিয়ান বাংলাদেশ এসোসিয়েশন (আয়েবা) দেশে বিদেশে বাংলাদেশীদের কল্যাণে কাজ করার পাশাপাশি ইউরোপ প্রবাসী বাংলাদেশীদের সব সমস্যার সমাধানে এগিয়ে আসবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ২৫ই জানুয়ারী’২০১৪ইং শনিবার ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিস আয়েবার ৪র্থ কার্যনির্বাহী পরিষদের সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়।আগামী দিনে ইউরোপের প্রতিটি দেশে আয়েবার কর্মসূচি প্রসারিত করার পাশাপাশি ইউরোপিয়ানদের ইন্টিগ্রেশনের ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়।

সংগঠনের সভাপতি জয়নুল আবেদীনের সভাপতিত্বে ও মহাসচিব কাজী এনায়েত উল্লার পরিচালনায় ইংল্যান্ড, ফ্রান্স, স্পেন, ইতালি, গ্রিস, পর্তুগালের, ডেনমার্ক, নরওয়ে, সুইডেন এবং জার্মানির প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন।পবিত্র কোরান থেকে তেলাওয়াত জাতীয় সঙ্গীত এবং শহীদুল আলম মানিক এর স্মরণে ১ মিনিট নিরবতা পালনের মাধ্যমে সভা শুরু হয়।প্রবাসী বাংলাদেশীদের আয়েবার সব কার্যক্রম বাস্থবায়নে সহায়তার জন্য আহ্বান জানান সংগঠনের নেতারা।

সভার শুরুতে সংগঠনের ফ্রান্স বাংলাদেশ ইকোনোমিক চেম্বারের প্রতিষ্ঠাতা কাজী এনায়েত উল্লা ইনু। তার বক্তব্যে (আয়েবা) সহ প্যারিসের বাংলাদেশী কমিউনিটিকে মজবুত অবস্থানে পৌঁছানোর জন্য যিনি নিরলস পরিশ্রম করছেন। তিনি ফ্রান্সের সকল বাংলাদেশীদের প্রিয় ও অত্যন্ত শ্রদ্ধাভাজন শহীদুল আলম মানিক । ইউরোপ জুড়ে রয়েছে তাঁর সুখ্যাতি।এর জন্য আন্তরিক সমবেদনা প্রকাশ করেন এবং সংগঠনের পক্ষ থেকে নেয়া বিভিন্ন উদ্যোগের প্রশংসা করেন। সভাপতি সভায় প্রতিটি দুতাবাসে প্রবাস কল্যান ডেস্ক, প্রবাস কল্যান ব্যাংক এবং ইউরোপের প্রতিটি দেশে স্থায়ী শহীদ মিনারের দাবী সহ ১৩ দফার ভবিষ্যত কর্মসূচী পেশ করেন।

তাছাড়া বাংলাদেশ ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশের নির্বাচিত প্রতিষ্ঠান, পেশাদার বিভিন্ন এসোসিয়েশন, সরকারী প্রতিষ্ঠান, সামাজিক সংগঠন, বিশ্ববিদ্যালয়, গবেষনা সংস্থা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তথা বাংলাদেশ ও ইউরোপের যে কোন দেশের উপরোক্ত বিভিন্ন সংগঠন, সংস্থা ও সরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সমঝোতামূলক বিভিন্ন চুক্তি প্রণয়ন ও বাস্তবায়নে এবং বাংলাদেশে বিনিয়োগ বান্ধব পরিবেশ সৃষ্টিতে মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা পালন করবে এই এসোসিয়েশন। একইসাথে বাংলাদেশ ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশের মধ্যকার কারিগরী, বৈজ্ঞানিক, অর্থনৈতিক, বানিজ্যিক ও সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে দ্বি-পাক্ষিক সহযোগিতা জোরদারে তাগিদ দেবে “সর্ব ইউরোপীয় বাংলাদেশ এসোসিয়েশন”।
সদস্যদের মাঝে বাংলাদেশের ইতিহাস, সংস্কৃতি ও বাস্তবতা সম্পর্কে সচেতনতা জাগ্রত করতে অগ্রনী ভূমিকা পালন করবে এই এসোসিয়েশন।

বাংলাদেশী ইমিগ্রান্ট ও শরনার্থীরা ইউরোপে অবস্থান করেও যাতে বাংলাদেশের নিজস্ব সংস্কৃতিকে ধরে রাখতে পারে, সেজন্য ব্যাপক কর্মসূচী ইউরোপ জুড়ে বিস্তৃত করবে “সর্ব ইউরোপীয় বাংলাদেশ এসোসিয়েশন”।
সদস্যদের জন্য ইউরোপের বিভিন্ন দেশে বিনোদনমূলক বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করবে এই এসোসিয়েশন।
অন্যান্য বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কর্মসূচী যেমন সভা, সেমিনার, শিক্ষামূলক সমাবেশ, বিতর্ক প্রতিযোগিতা, কনফারেন্স, গবেষনা কার্যক্রম, পুরস্কার প্রদান, প্রতিযোগিতা আয়োজন, নাটক মঞ্চায়ন, চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, সঙ্গীতানুষ্ঠান, ফকলরিক, শিল্পচর্চা, বৃত্তি প্রদান, শিক্ষা সফর, বাংলাদেশ থেকে আনা হস্ত ও কুটির শিল্পজাত পন্যের প্রদর্শনী এবং নিজস্ব প্রকাশনার আওতায় বই, ম্যাগাজিন, সাময়িকী ও তথ্যগত বুলেটিন প্রকাশ করবে “সর্ব ইউরোপীয় বাংলাদেশ এসোসিয়েশন”।
ইউরোপের যে কোন দেশে আসা বাংলাদেশী ইমিগ্রান্টদের আশ্রয় প্রদানের নিমিত্তে তাদের প্রয়োজনীয় স্বার্থ রক্ষা ও ন্যায্য অধিকার নিশ্চিত করতে প্রতিনিধিত্বমূলক ভূমিকা পালন করবে এই এসোসিয়েশন। বাংলাদেশী ইমিগ্রান্টদেরকে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে বাস্তবধর্মী উৎপাদনমুখী খাতে নিয়োজিত করার পাশাপাশি তাদেরকে ইউরোপের সমাজ ও রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত করতে কাজ করবে “সর্ব ইউরোপীয় বাংলাদেশ এসোসিয়েশন”।
বাংলাদেশী ইমিগ্রান্টদেরকে ইউরোপীয় সমাজে সাংস্কৃতিক, সামাজিক ও অর্থনৈতিকভাবে প্রতিষ্ঠিত করতে তথা তাদের সফল ইন্টিগ্রেশনের জন্য কাজ করে যাবে এই এসোসিয়েশন। ইউরোপের বিভিন্ন দেশের নাগরিকদের সাথে ইমিগ্রান্টদের বিশেষ করে বাংলাদেশের নাগরিকদের সম-অধিকার ও সমান সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করতে সদাসতর্ক থাকবে “সর্ব ইউরোপীয় বাংলাদেশ এসোসিয়েশন”।

বাংলাদেশী ইমিগ্রান্টদের ইউরোপে সামাজিক ও রাজনৈতিক অধিকার প্রতিষ্ঠায়ও কাজ করবে এই এসোসিয়েশন। ইউরোপের যে কোন দেশের সরকারী-বেসরকারী ও প্রাইভেট সেক্টরে কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের সাথে যে কোন বাংলাদেশী ইমিগ্রান্ট এর কোন জটিলতা বা সমস্যা সৃষ্টি হলে প্রয়োজনীয় আইনী সহায়তা প্রদান করবে “সর্ব ইউরোপীয় বাংলাদেশ এসোসিয়েশন”।

বাংলাদেশী ইমিগ্রান্টদের জন্য নিজ নিজ দেশের ভাষা শিক্ষা কোর্স, অন্যান্য বেসিক শিক্ষা কার্যক্রম, বিশেষ স্কুল পরিচালনা সহ তাদেরকে দক্ষ জনশক্তিতে পরিনত করতে প্রফেশনাল কোর্স আয়োজন এবং আয়োজনে সহযোগিতা করবে এই এসোসিয়েশন। বিভিন্ন ইউরোপীয় ও আন্তর্জাতিক সংস্থা, সামাজিক সংগঠন, রাজনৈতিক দল, ট্রেড ইউনিয়ন ও বর্নবাদ বিরোধী সংগঠন সমূহের সহযোগিতা নিয়ে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে বসবাসরত বাংলাদেশী ইমিগ্রান্টদের যে কোন প্রকার সহযোগিতা প্রদান ও সহমর্মিতা প্রদর্শনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে “সর্ব ইউরোপীয় বাংলাদেশ এসোসিয়েশন”।

উপরোক্ত যে কোন ধরনের কর্মসূচী এই এসোসিয়েশনের জন্য অর্থনৈতিকভাবে অলাভজনক খাত হিসেবে বিবেচিত হবে, যা এসোসিয়েশনের প্রাতিষ্ঠানিক ভিত্তির জন্য অপরিহার্য। বাংলাদেশের সর্বত্র শিক্ষার প্রসার ও অবাধ তথ্যপ্রবাহে যেসব বাধা রয়েছে, তা দূরীকরণে ইউরোপে প্রয়োজনীয় ব্যাপক প্রচারাভিযান চালাবে এই এসোসিয়েশন। বাংলাদেশের দরিদ্র মানুষের দোরগোড়ায় অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা ও চিকিৎসা সুবিধা পৌছে দিতে গুরুত্বপূর্ণ সহায়ক শক্তির ভূমিকা পালন করবে “সর্ব ইউরোপীয় বাংলাদেশ এসোসিয়েশন”।

এই এসোসিয়েশনের যে কোন কর্মসূচী মূলতঃ সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকবে, যার মধ্য দিয়ে সদস্যরা একইসাথে বাংলাদেশের সামাজিক মূল্যবোধ ও সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যকে প্রবাসে সমুন্নত রাখার সুযোগ পাবে। সর্বোপরি প্রবাসে “কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট” এবং বাংলাদেশে “কান্ট্রি ডেভেলপমেন্ট” সর্ব ইউরোপীয় বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের ভিশন এন্ড মিশন ।

———————————————————————————————————————————————

[[ আপনি জানেন কি? আমাদের সাইটে আপনিও পারবেন আপনার নিজের লেখা জমা দেওয়ার মাধ্যমে আপনার বা আপনার এলাকার খবর তুলে ধরতে এই লেখায় ক্লিক করে জানুন এবং  তুলে ধরুন। নিজে জানুন এবং অন্যকে জানান। আর আমাদের ফেসবুক ফ্যানপেজে রয়েছে অনেক মজার মজার সব ভিডিও সহ আরো অনেক মজার মজার টিপস তাই এগুলো থেকে বঞ্চিত হতে না চাইলে এক্ষনি আমাদের ফেসবুক ফ্যানপেজে লাইক দিয়ে আসুন। এবং আপনি এখন থেকে প্রবাস জীবনে আমাদের সাইটের মাধ্যমে আপনার যেকোনো বেক্তিগত জিনিসের ক্রয়/বিক্রয় সহ সকল ধরনের বিজ্ঞাপন ফ্রিতে দিতে পাড়বেন। ]]

*****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

farid ahammad

লক্ষ-কোটি মানুষ কেন পৃথিবীতে ঘোরে কি খোঁজে তারা আকাশ ও পাতালে ভেবেছ কি কখনো একটু বসে দেখেছো কি সত্যটা নিজ আঁখি মেলে? জানি কি, আমি জানি সত্যের বানী শুনি কি, আজ শুনি আত্মার ধ্বনি? দেখেছি দেখেছি আমি হে সত্য সন্ধানী মানুষ এসেছে খনে শুনে কার বানী। স্রস্টার উদ্দেশ্যে মোরা, তব কিনা জানি খুঁজে দেখ হে সত্য সন্ধানী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *