বাংলাদেশীদের ১০ বছরের মেয়াদী মাল্টিপল ভিসা দিতে প্রস্তুত আমেরিকা

দীর্ঘমেয়াদী ভিসা দিতে আগ্রহী যুক্তরাষ্ট্র। বর্তমানে বাংলাদেশীদের ৫ বছর মেয়াদী মাল্টিপল ভিসা দেয়া হচ্ছে। এর মেয়াদ দ্বিগুণ বাড়াতে পারে মাকির্ন দূতাবাস।

এ্যম্বাসি অব দি ইউনাইটেড স্টেটস অফ আমেরিকার ডেপুটি চীফ অব মিশন জন এফ. ড্যানিলোইজ রাইজিংবিডিকে এ তথ্য দেন।তিনি বলেন,‘বাংলাদেশ বর্তমানে সর্বোচ্চ ৫ বছরের মাল্টিপল ভিসা দেয় বিদেশীদেরকে। কিন্তু বাংলাদেশ যদি মার্কিন নাগরিকদের ১০ বছর মেয়াদী মাল্টিপল ভিসা দেয় তাহলে আমেরিকাও বাংলাদেশীদের ১০ বছরের মেয়াদী মাল্টিপল ভিসা দিতে প্রস্তুত।’এ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন,‘থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুরসহ অনেক দেশ ১০ বছর মেয়াদী যুক্তরাষ্ট্রের মাল্টিপল ভিসা সুবিধা পেয়ে থাকে।বর্তমানে অনেক বাংলাদেশী ব্যবসায়ী যুক্তরাষ্ট্রের মাল্টিপল ভিসা সুবিধা (৫ বছর মেয়াদী) পেয়ে আসছেন।তবে ভিসার মেয়াদ ১০ বছর করার ক্ষেত্রে একটি বড় বাঁধা অপসারন প্রয়োজন। বাংলাদেশ সরকার নাগরিকদের যে পাসপোর্ট ইস্যু করে তার মেয়াদ ৫ বছর। ১০ বছরের ভিসা পেতে গেলে পাসপোর্টের মেয়াদও ১০ বছর করার প্রয়োজন হতে পারে।এবিষয়ে বাংলাদেশের পাসপোর্ট নীতি পরিবর্তন বা আধুনিকায়নের উপর জোর দেন কারন বাংলাদেশ সরকারের পাসপোর্টের মেয়াদ থাকে মাত্র ৫ বছর। এক্ষেত্রেও সরকারের পাসপোর্ট নীতি পরিবর্তন বা আধুনিকায়নের পক্ষে জোর দেন জন এফ. ড্যানিলোইজ।

তিনি বলেন,‘এর মাধ্যমে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে ব্যবসা বাণিজ্যের সম্প্রসারণ সম্ভব।’ উল্লেখ্য পৃথিবীর অধিকাংশ দেশের পাসপোর্টের মেয়াদ ১০ বছর।

*****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

View all contributions by

Subscribe To Our Newsletter

আপনার পক্ষে কি প্রতিদিন আমাদের সাইটে আসা সম্ভব হয় না? তাহলে আপনি আমাদের ইমেইল নিউজলেটার সাবসক্রাইব করতে পারেন। এর মাধ্যমে আমাদের নতুন কোনো পোষ্ট করলে আপনি স্বয়ংক্রিয়ভাবে তার সন্ধান পেয়ে যাবেন আপনার নিজের ইমেইলের ইনবক্সে।

{ 0 comments… add one }

Leave a Comment

alexa toolbar

Get our toolbar!

সর্ব কালের ৮ জন সেরা লেখক

    সর্বাধিক পঠিত

    Popular Posts

    আমাদের সম্পর্কে | যোগাযোগ | সাইট ম্যাপ

    কপিরাইট ©২০১১-২০২০ । আমিওপারি ডট কম

    পূর্ব অনুমতি ব্যতিরেকে কোনো লেখা বা মন্তব্য আংশিক বা পূর্ণভাবে অন্য কোন ওয়েবসাইট বা মিডিয়াতে প্রকাশ করা যাবে না।

    ডিজাইন এবং ডেভেলপঃ

    Amiopari.com