ফখরুদ্দিন বাবুর্চির মুরগীর রেজালা

সাবরিনা রাহমানঃ ফখরুদ্দিন বাবুর্চির জন্ম ভারতের পাটনায়, কাজের সন্ধানে এসেছিলেন বাংলাদেশে। তারপর ১৯৬৫ সালে তিনি ঢাকায় আসেন এবং ভিকারুননেসা স্কুলে দারোয়ানের চাকরি পান। স্কুল কতৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে ১৯৬৬ সালে স্কুলের ক্যান্টিন পরিচালনার দায়িত্ব গ্রহন করেন। এরপর থেকে শুরু স্কুলের ছাত্রীদের জন্য নাশতা বানানোর কাজ।

তাঁর তৈরি করা খাবার খুব দ্রুতই জনপ্রিয়তা লাভ করে। সেই নাশতা থেকে আজ পর্যন্ত কাচ্চি বিরিয়ানি, মুরগীর কোর্মা ও অন্যান্য শত রকমের খাবার দেশ থেকে বিদেশে হাজার মানুষের মন জয় করে চলেছে। রান্নার এই জাদুকর আজ আর বেঁচে নেই। কিন্তু বেঁচে আছে তার সুনাম। তার দেখানো পথে তাঁরই উত্তরসূরিরা আজও আমাদের সবার ঘরে ঘরে তাঁর সৃষ্ট রেসিপির মজার খাবার গুলি পৌঁছে দিচ্ছেন ।

ফখরুদ্দিন বাবুর্চির এই সব অসাধারণ সৃষ্টি আমাদের জীবনে বহুকাল একটি বিশেষ স্থান দখল করে রাখবে। ঘরেই ফখরুদ্দিন বাবুর্চির রেসিপির স্বাদ গ্রহণ করার জন্য তাঁর বিখ্যাত মুরগীর রেজালা রান্না করার পদ্ধতি আজ আপনাদের জন্য দেয়া হলো-

উপকরন-

মুরগী – ১ কেজির ২ টি (১৪ পিস হবে)
সয়াবিন তেল – আধা কেজি
হলুদ গুঁড়া- ১ টে চা
গরম মসলা- পরিমান মতো
আদা বাটা – ১ চা চা
আলু বোখারা – ২০০ গ্রাম
পেঁয়াজ বাটা – আধা কেজি
টক দই – ১ পোয়া
রসুন বাটা – ১ চা চা
লবন-পরিমান মতো
শুকনা মরিচের গুঁড়া -১ টে চা
জিরা -৫০ গ্রাম

রান্নার নিয়ম-

মুরগীর মাংসের টুকরাগুলো ভালো করে পরিষ্কার করে একটি হাঁড়ির মধ্যে রাখুন। তারপর তেল সবটুকু ঢালুন। পেঁয়াজ বাটা,লবন পরিমান মত,হলুদ গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, মরিচের গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, জিরা বাটা ১ টেবিল চামচ,আদা বাটা ১ চা চামচ,রসুন ১ চা চামচ ও ১ কাপ পরিমান টক দই মাংসের মধ্যে ঢালুন । এবার হাত দিয়ে সব মসলা মাংসের সাথে মেশান। তারপর এক কাপ পরিমান পানি মাংসে ঢালুন।

এবার হাঁড়ি চুলায় বসান। কিছু সময় পর ঢাকনা খুলে চামচ দিয়ে নেড়ে দেখুন সব ঠিক আছে কিনা। যদি সব ঠিক থাকে তাহলে কিছু সময় আঁচে রাখুন। আবার কিছু সময় পর নাড়া দিয়ে দেখুন মাংস সিদ্ধ হয়েছে কিনা,যদি সিদ্ধ হয়ে থাকে তাহলে চুলা থেকে নামিয়ে নিন। আবার সুন্দর করে সাজিয়ে পরিবেশন করুন ।

সূত্র- ফখরুদ্দিন বাবুর্চির জীবনী বিষয়ক গ্রন্থ থেকে সংগৃহীত।

[[ আপনি জানেন কি? আমাদের সাইটে আপনিও পারবেন আপনার নিজের লেখা জমা দেওয়ার মাধ্যমে আপনার বা আপনার এলাকার খবর তুলে ধরতে জানতেএখানে ক্লিক করুণতুলে ধরুন  নিজে জানুন এবং অন্যকে জানান ]]

*****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

View all contributions by

Subscribe To Our Newsletter

আপনার পক্ষে কি প্রতিদিন আমাদের সাইটে আসা সম্ভব হয় না? তাহলে আপনি আমাদের ইমেইল নিউজলেটার সাবসক্রাইব করতে পারেন। এর মাধ্যমে আমাদের নতুন কোনো পোষ্ট করলে আপনি স্বয়ংক্রিয়ভাবে তার সন্ধান পেয়ে যাবেন আপনার নিজের ইমেইলের ইনবক্সে।

{ 0 comments… add one }

Leave a Comment

alexa toolbar

Get our toolbar!

সর্ব কালের ৮ জন সেরা লেখক

    সর্বাধিক পঠিত

    Popular Posts

    আমাদের সম্পর্কে | যোগাযোগ | সাইট ম্যাপ

    কপিরাইট ©২০১১-২০২০ । আমিওপারি ডট কম

    পূর্ব অনুমতি ব্যতিরেকে কোনো লেখা বা মন্তব্য আংশিক বা পূর্ণভাবে অন্য কোন ওয়েবসাইট বা মিডিয়াতে প্রকাশ করা যাবে না।

    ডিজাইন এবং ডেভেলপঃ

    Amiopari.com