হাতে হাতে চলে আসছে স্মার্টওয়াচ

স্মার্টফোনের বাজার এখন চাঙ্গা। সারা বিশ্বে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। সম্প্রতি স্যামসাং ও সনি স্মার্টওয়াচ নিয়ে প্রযু্ক্তি বাজারে প্রতিযোগিতা করছে।

একদিকে দক্ষিণ কোরিয়া ভিত্তিক প্রযুক্তি নিরমাতা প্রতিষ্ঠান স্যামসাং বাজারে নিয়ে এসেছে গ্যালাক্সি গিয়ার ফিট, গ্যালাক্সি গিয়ার টু এবং গিয়ার টু নিও আর অন্যদিকে জাপানের সনি এনেছে স্মার্টওয়াচ। বাংলাদেশের প্রযুক্তি বাজারে দুটি প্রতিষ্ঠানের স্মার্টওয়াচ পাওয়া যাচ্ছে।

বর্তমানে বাজারে আসা আধুনিক স্মার্টফোনগুলোতে উন্নতমানের সেন্সর চিপ বসানো থাকে। এধরনের চিপের কারণে স্মার্টফোনের সঙ্গে যেকোন স্মার্ট ডিভাইস কানেক্ট করা যায়। স্মার্টওয়াচ ছাড়াও স্মার্টটিভি পরিচালনা করা যায় স্মার্টফোন দিয়ে।
স্মার্টওয়াচের ব্যবহার

দেখতে আকর্ষণীয় স্মার্টওয়াচের ব্যবহার অনেকেই হয়তো জানে না। কিন্তু এই ছোট্ট ডিভাইসটির কাজের পরিধি ব্যাপক। অনেক কাজ সহজেই করে দিতে পারে হাতে পড়ে থাকা স্মার্টওয়াচটি। একজন মানুষের হার্টবিট রেট কত তা জানিয়ে দেয়া থেকে শুরু করে মানুষটি হেঁটে বা দৌড়িয়ে কত ক্যালোরি ঝেড়ে ফেলে দিল সেটাও জানিয়ে দিতে পারে স্মার্টওয়াচ। এছাড়া রাস্তায় চলাফেরা বা গাড়ি চালানোর সময় মোবাইল বের করে কল রিসিভ করা দূরুহ। আর তাই স্মার্টওয়াচ দিয়ে কল রিসিভ করা ও কল কেটে দেয়ার কাজটি মূহুর্তেই করে ফেলা যায়।

এখানেই শেষ না, ব্যবহারকারীরা ম্যাসেজ ও ইমেইলও পড়তে পারবে ছোট্ট স্ক্রীণের স্মার্টওয়াচে। এখন আরো একটি অসাধারন সুবিধার কথা বলব আর তা হলো, স্মার্টওয়াচ দিয়ে ছবিও তোলা যায় আর এই তোলা ছবি সংরক্ষণ হয় ব্যবহারকারীর স্মার্টফোনে। আর তাই ছবি তোলার জন্য স্মার্টফোন বার বার পকেট থেকে বের করার দরকার পড়ে না। স্মার্টওয়াচ দিয়ে স্টপওয়াচ ও এ্যালার্ম দেয়ার কাজও করতে পারবে ব্যবহারকারীরা।

স্মার্টফোনে গান শোনে মোটামুটি সবাই। গান শোনার সময় বার বার পকেট থেকে স্মার্টফোন বের করে পছন্দের গান নির্বাচন করা ঝামেলা, যেখানে স্মার্টওয়াচ দিয়েই ব্যবহারকারী গান নির্বাচন করতে পারবেন। এমনকি স্মার্টফোনে সংরক্ষিত থাকা ভিডিও দেখা যাবে ছোট্ট এই ডিভাইসে।

এবার আসা যাক নিরাপত্তার বিষয়টিতে। যে স্মার্টফোনের সঙ্গে স্মার্টওয়াচ কানেক্টেড বা সংযুক্ত করা থাকবে সে ফোনটি মোটামুটি ভালো একটি নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্যেই থাকবে। কোন ব্যবহারকারাী যদি তার স্মার্টফোন কোথাও ফেলে কয়েক কদম হেঁটে দূরে চলে আসেন তবে সংযুক্ত স্মার্টওয়াচটি অ্যালার্মের মাধ্যমে তা জানিয়ে দেবে। এছাড়া কেউ স্মার্টফোনটি নিয়ে চলে গেলেও ম্যাপিং-সুবিধা ব্যবহার করে জানা যাবে স্মার্টফোনটির অবস্থান। যদিও এ সুবিধা পাওয়া তখনই সম্ভব যখন চোর চুরি করা স্মার্টফোনটি স্ট্যান্ডবাই অবস্থায় বা অন করে রাখেন।
ব্যবহারবিধি

স্মার্টওয়াচে এত্ত কাজ করা যায় বলে ভয় পাওয়ার কিছু নেই যে এটি ব্যবহার করা অনেক কঠিন। মোটেই এ কথাটি সত্য না। নির্দিষ্ট স্মার্টফোনের জন্য নির্দিষ্ট অ্যাপ্লিকেশন ফোনে ইন্সটল করতে হবে সবার আগেই। পরে স্মার্টওয়াচ ফোনের সঙ্গে সংযোগ দিয়ে ব্যবহার শুরু করে দিলেই হয়ে গেল। স্মার্টওয়াচের জন্য আলাদা চার্জার দিয়ে দেয়া হয় যা দিয়ে চার্জ দিয়ে সারাদিন টানা ব্যবহার করা যায় এটি।
কোথায় পাওয়া যাবে

বাংলাদেশে স্যামসাং গ্যালাক্সি গিয়ার টু নিও-এর দাম ২২,০০০টাকা, গিয়ার টু ২১,৩০০টাকা এবং গিয়ার ফিট ২০,০০০টাকা। অন্যদিকে সনির মেটাল বেল্ট স্মার্টওয়াচ ১৮,০০০টাকা এবং টিপিইউ বেল্ট স্মার্টওয়াচ ১৫,৯০০টাকা। ঢাকার বসুন্ধরা শপিং সেন্টার, গুলশান মার্কেট, ইস্টার্ন প্লাজাসহ আরো বেশ কয়েকটি বিপনণ বিতানে পাওয়া যাবে স্মার্টওয়াচগুলো।

স্মার্টফোনের পর সময় হয়েছে এবার স্মার্টওয়াচের বাজার চাঙ্গা হওয়ার। প্রযুক্তি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো উঠেপড়ে লেগেছে কিভাবে নিত্য নতুন প্রযুক্তির সঙ্গে বিশ্বকে পরিচয় করিয়ে দেয়া যায়। প্রযুক্তির এই ভীড়ে গ্যাজেটপ্রেমীরাও থাকে ফুরফুরে মেজাজে। সব মিলিয়ে প্রযুুক্তি ব্যবহারের উত্তেজনায় ভরপুর অনুভূতি নিয়েই এগিয়ে চলেছে সারা বিশ্ব।

*****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

View all contributions by

Subscribe To Our Newsletter

আপনার পক্ষে কি প্রতিদিন আমাদের সাইটে আসা সম্ভব হয় না? তাহলে আপনি আমাদের ইমেইল নিউজলেটার সাবসক্রাইব করতে পারেন। এর মাধ্যমে আমাদের নতুন কোনো পোষ্ট করলে আপনি স্বয়ংক্রিয়ভাবে তার সন্ধান পেয়ে যাবেন আপনার নিজের ইমেইলের ইনবক্সে।

{ 0 comments… add one }

Leave a Comment

alexa toolbar

Get our toolbar!

সর্ব কালের ৮ জন সেরা লেখক

    সর্বাধিক পঠিত

    Popular Posts

    আমাদের সম্পর্কে | যোগাযোগ | সাইট ম্যাপ

    কপিরাইট ©২০১১-২০২০ । আমিওপারি ডট কম

    পূর্ব অনুমতি ব্যতিরেকে কোনো লেখা বা মন্তব্য আংশিক বা পূর্ণভাবে অন্য কোন ওয়েবসাইট বা মিডিয়াতে প্রকাশ করা যাবে না।

    ডিজাইন এবং ডেভেলপঃ

    Amiopari.com