ইউরোপে রাজনৈতিক আশ্রয়ের কথা ভাবছেন? চলে যান সুইডেন!

গত বছর সুইডেনে সর্বমোট ৫৪২৫৯ জন রাজনৈতিক আশ্রয়ের আবেদন করে যা প্রতিবেশী দেশ ডেনমার্ক ও নরওয়ের চেয়ে অনেক বেশি। শুধুমাত্র সিরিয়া থেকে গেল বছর সুইডেনে ১৬৫০০ জন রাজনৈতিক আশ্রয় প্রার্থনা করে যেখানে উক্ত দেশ থেকে মাত্র ৭৫৪০ জন ডেনমার্কে এবং ১২০০০ জন নরওয়ে আশ্রয় প্রার্থনা করে। ইউরোপে এককভাবে সবচেয়ে বেশি রাজনৈতিক আশ্রয়ের জন্য আবেদন পড়ে জার্মানিতে যা নভেম্বরে গিয়ে এক লাখে দাঁড়ায়। বিদেশীদের জন্য রাজনৈতিক আশ্রয়ের জন্য দ্বিতীয় পছন্দের দেশ ছিল ফ্রান্স।

এদিকে, নরডিক কান্ট্রিজগুলোর মধ্যে ফিনল্যান্ড, ডেনমার্ক ছেড়ে সবাই কেন সুইডেনে ঝাপিয়ে পড়ছে? সম্ভবত এর উত্তর একটাই রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থীদের প্রতি সুইডেন অনেক নমনীয়তা প্রদর্শন করে।উল্লেখ্য, অন্যান্য দেশে যেখানে রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থীর সংখ্যা উপচে পড়ছিল সেখানে গত বছর ফিনল্যান্ডে রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থীর সংখ্যা ছিল মাত্র ৩০০০ জন যেখানে সিরিয়া থেকে আসে মাত্র ১৩৫ জন! এছাড়া সুইডেনে রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থীদের কেউ যদি ক্যাম্পে থাকে না চাই, তবে তারা প্রাইভেট বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতে পারে এবং সুইডিশ ইমিগ্রেশন এর জন্য আর্থিক অনুদানও দিয়ে থাকে যেটি ডেনমার্ক বা নরওয়েতে পাওয়া যায় না।

২০১৩ সালে সুইডেনে জব ভিসা ও অনান্য ভিসা নিয়ে আসা সব মিলে সর্বমোট ১১৬৫০০ জন পার্মানেন্ট রেসিডেন্স পারমিট পায় যা এযাবৎ কালের একটা রেকর্ড এবং ২০১২ সাল থেকে এ সংখ্যা ৫ শতাংশ বেশি। এখন সুইডেনে সকলের কাছে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে ডেনমার্ক বা নরওয়ে বাদ দিয়ে সবাই কেন সুইডেনে ঝাপিয়ে পড়ছে এবং কেনই বা সুইডেন সরকার এত উদারতা দেখাচ্ছে? উল্লেখ্য, এককভাবে সিরিয়া থেকে আসা সকল অ্যাসাইলাম সিকারের প্রায় ৬০% আসে সুইডেন ও জার্মানিতে।

এদিকে, সুইডেনের নমনীয় ফ্যামিলি রিইউনিফিকেশন আইন আর ডেনমার্কের বিপরীত বা কঠিন ফ্যামিলি রিইউনিফিকেশন আইন দুটো দেশের সার্বিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে নরওয়ে সরকারও ডেনমার্কের মত বেশ কঠিন ফ্যামিলি রিইউনিফিকেশন আইন আনতে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে উদ্দেশ্য একটাই বিদেশীদের সংখ্যা কমিয়ে আনা এবং অ্যাসাইলাম সিকারের সংখ্যা হ্রাস করা।

উপসংহারঃ নো ইস্ট নো ওয়েস্ট সুইডেন ইজ দ্যা বেষ্ট! ইউরোপে রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থীদের জন্য সুইডেন আদর্শ দেশ হতে পারে এবং মামলা করলে ভাল রেজাল্ট পাবার সম্ভবনা অন্য যেকোন দেশের চেয়েই বেশি।

ছবিঃ সিরিয়া থেকে আগত রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থীরা ডেনিশ বিদ্বেষমূলক আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শন করছে। উৎসঃ ইউল্যান্ড পোস্টেন।

[[ আপনি জানেন কি? আমাদের সাইটে আপনিও পারবেন আপনার নিজের লেখা জমা দেওয়ার মাধ্যমে আপনার বা আপনার এলাকার খবর তুলে ধরতে এই লেখায় ক্লিক করে জানুন এবং  তুলে ধরুন। নিজে জানুন এবং অন্যকে জানান। আর আমাদের ফেসবুক ফ্যানপেজে রয়েছে অনেক মজার মজার সব ভিডিও সহ আরো অনেক মজার মজার টিপস তাই এগুলো থেকে বঞ্চিত হতে না চাইলে এক্ষনি আমাদের ফেসবুক ফ্যানপেজে লাইক দিয়ে আসুন। এবং আপনি এখন থেকে প্রবাস জীবনে আমাদের সাইটের মাধ্যমে আপনার যেকোনো বেক্তিগত জিনিসের ক্রয়/বিক্রয় সহ সকল ধরনের বিজ্ঞাপন ফ্রিতে দিতে পাড়বেন। ]]

*****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

View all contributions by

Subscribe To Our Newsletter

আপনার পক্ষে কি প্রতিদিন আমাদের সাইটে আসা সম্ভব হয় না? তাহলে আপনি আমাদের ইমেইল নিউজলেটার সাবসক্রাইব করতে পারেন। এর মাধ্যমে আমাদের নতুন কোনো পোষ্ট করলে আপনি স্বয়ংক্রিয়ভাবে তার সন্ধান পেয়ে যাবেন আপনার নিজের ইমেইলের ইনবক্সে।

{ 1 comment… add one }
  • murtujahasan April 16, 2015, 9:33 am

    ভাইয়া সুইডেনের ভিসা চেক করার সাইট টা কি দিবেন ???

Leave a Comment

alexa toolbar

Get our toolbar!

সর্ব কালের ৮ জন সেরা লেখক

    সর্বাধিক পঠিত

    Popular Posts

    আমাদের সম্পর্কে | যোগাযোগ | সাইট ম্যাপ

    কপিরাইট ©২০১১-২০২০ । আমিওপারি ডট কম

    পূর্ব অনুমতি ব্যতিরেকে কোনো লেখা বা মন্তব্য আংশিক বা পূর্ণভাবে অন্য কোন ওয়েবসাইট বা মিডিয়াতে প্রকাশ করা যাবে না।

    ডিজাইন এবং ডেভেলপঃ

    Amiopari.com